ইতি তোমার রিয়া // আফতাব মল্লিক

 Aftab Mallik
আমার সমস্ত ভালোবাসা নিংড়ে তোমার ঠোঁটে দিয়েছিলাম,
তোমার এক চাওয়াতেই।
অন্ধ সেজে, লোক লজ্জা, সমাজকে পাশ কাটিয়ে,
তোমার সঙ্গী হয়েছিলাম।
শুধু তোমাকে খুশি করতে।
তোমার হাতে হাত রেখে, বিশ্বাসের একটা সেতু তৈরি করতে চেয়েছিলাম।
যেখানে হেঁটে বেড়াবো শুধু তুমি আর আমি।
আমাদের প্রেমের খড়কুটো দিয়ে,
এই হৃদয়ে একটা ছোট্টো বাসা বাঁধতে চেয়েছিলাম।
যেখানে ইচ্ছে ফ্রেমে বন্দী হবে,
আমাদের টুকরো স্মৃতির মুহূর্ত গুলো।
তোমার চোখের তারায় দেখা,
প্রথম দিনের সেই খুশির সবুজ পাতার মাঝে,
আশার ছোট্টো কুঁড়ি হতে চেয়েছিলাম।
যাকে তুমি বিষন্নতার ঝড় থেকে আগলে রাখবে সারাজীবন।
তোমার দুষ্টু চাওয়ার কাছে নিজেকে বিলিয়ে দিয়ে,
তোমাকে সুখী দেখে নিজেকে ধন্য করেছিলাম।
অজানা, অচেনা ভবিষ্যতের কথা না ভেবেই।
নিজের নারী সত্ত্বার বিসর্জন দিয়ে,
তোমার চিরসাথী হওয়ার বিশ্বাস কে,
শক্ত করতে চেয়েছিলাম।
তোমার ক্লান্ত দুপুরে দুহাত ভরে,
হিমেল পরশ মেখে দিয়েছিলাম।
তোমার ইচ্ছে সূর্যটাকে ডুবতে দেবো না বলে।
তোমার মনমরা বিকেলে,
লতার মতো তোমার বুকে জড়িয়ে,
খুশির বন্যা বইয়ে দিয়েছিলাম।
তোমার চরম তৃপ্তির মুহূর্তে,
তোমার গভীর নিঃশ্বাসের সঙ্গে মিশে থেকেছিলাম।
তোমার আঁধার জীবনে, কালো মেঘের কোলে,
জ্যোৎস্না হয়ে ঝরে পড়েছিলাম।
শত দুঃখেও তোমার বুকে,
একটু আশার আলো খুঁজে ছিলাম।
আর এসবের বিনিময়ে,,,,,,,,,,,,,,,,
প্রতারনার শিকার হয়ে,
বঞ্চনার আগুনে নিজেকে পোড়াতে হবে,
কখনো ভাবিনি!
উপেক্ষার ঝড়ে,তিল তিল করে গড়ে তোলা,
ভালোবাসার ঘর ভেঙে যাওয়া দেখবো,
কখনো ভাবিনি!!
এতো সহজে, আমাকে দুরে সরিয়ে,
আমার আশার সমাধি রচনা করবে,
কখনো ভাবিনি !!
নিজেকে এমন ভাবে জীবন মরন সন্ধিক্ষণে দেখবো,
কখনো ভাবিনি !!
নাইবা পেলাম তোমার ভালোবাসা।
কোনোদিন তোমার ছিলাম,
এটা ভেবেই আমি সুখী। শুধু এটুকু জেনো।
তোমার খুশি, তোমার সুখ চেয়েছি প্রতিক্ষনে।
শুধু এটুকু জেনো।
নাইবা পেলাম তোমাকে ?
তবু অনুভবে রেখেছি তোমাকে।
শুধু এটুকু জেনো।
কেউ তোমাকে ভালবেসেছিলো,ভালোবাসে এখনও,
আর সারাজীবন ভালোবাসবে।
শুধু এটুকু জেনো।
                     ইতি তোমার রিয়া

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *