তৈমুর খানের দুটি কবিতা

তৈমুর খানের দুটি কবিতা

আরব্যরজনী 
আমাকে সামান্য ভেবে 
তুমি অসামান্য হয়ে গেছ 
যেখানে কোনোদিন পড়ে নিকো আলো 
সেইখানে আমাকে রেখেছ  ।
পেঁচারা উড়ছে চারিদিকে 
ক্রতুভুক মহারব তোলে 
ছিন্নসত্তার জাগরণ টের পাই 
তুমি সমুদ্র পেরিয়ে কোথাও চলে গেছ… 
পৃথিবীর বহু অন্যমনস্ক দরোজা দেখি 
কোথাও আমার নিমন্ত্রণ নেই 
অথচ এক একটি দীর্ঘ গল্পের রাত 
যুবতীরা বলে যাচ্ছে এক একটি কাহিনি 
আমি তবে কেন জন্মালাম  ? 
আমার পুরুষইচ্ছাগুলি খোঁজে তরবারি  ! 
আশ্চর্য জাদুকর 
জাদুকর ডাকছে 
আর উড়ে উড়ে আসছে সব মনুষ্যপাখি 
তাদের মসৃণ ঠোঁট           রঙধনু ডানা 
ঠোঁটে ঠোঁটে চুম্বনের মধু         ডানায় রঙের আল্পনা 
আমাদের বিস্ময়ের পাড়া 
আমাদের অলৌকিক দেশ 
বেদনায় বিহ্বল হতে হতে 
অশ্রুজলে নৌকা ভাসাই 
জাদুকর একহাতে আপেল ছুঁড়ে দেয় 
একহাতে সোনার আংটি পরিয়ে দেয় 
চুম্বনের ঘোর মেঘে ঢেকে দেয় সংসার 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *