সিংহ ভাগ // বিশ্বনাথ পাল

 biswanath pal

পুজো এল পুজো এল

গন্ধে আকুল মন।
পুজোর দিনে স্বজন বিনে
 রয় না ঘরে মন।
কাশের বনে মন হারিয়ে
শিউলি ফুলের রাশি
দিঘীর বুকে পদ্ম ফোটে 
দেখতে ভালবাসি। 
বড় দালানে বুড়ো মিস্ত্রী
মত্ত ঠাকুর গড়ায় 
ঘামতেলটা  মাখাবে কখন? 
ছেলেরা যে বকায়। 
মিস্ত্রী রেগে কাজ যে ফেলে
বোঁচকা বেঁধে বলে। 
রইলো তোদের ঠাকুর এবার
যাচ্ছি বাড়ি চলে। 
খবর পেয়ে সেজো বাবু
 শান্ত করেন তাকে। 
ছেলেদের ওপর রাগ করে 
কি ভুলতে আছে মাকে? 
দেব দ্বিজে যার অচলা ভক্তি
সেই মিস্ত্রী গেলে
পুজো  বাতিল হবেই এবার
শোনরে   দুষ্টু    ছেলে। 
সেজো বাবুর পায়ের ধুলো
মাথায় ধরে এবার
বুড়ো একমনে ঠাকুর গড়ে
দালানে এসে আবার। 
কার কটা জামা হল হল 
 মন ছিল না তাতে। 
বাঁশের খুঁটি পুতল কটা 
সেই হিসাবের সাথে
পুজো দেখার ভারি মজা
রেডিওতে ভোরে চন্ডীপাঠ
সব সেন্টারে আগে পিছে
এক আনন্দের হাট। 
জানতে ওরা পেরেছে যখন
কমলো  মনে রাগ, 
আমার আনন্দভাগ করে
দিই ওদের সিংহ ভাগ। 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *