Banalata Sen of Jibanananda translated by Ranesh Roy

sahityakaal.com


I walk and walk along
I have travelled since
Thousand of years long
From Singhal ocean to
Dark night  of Malay sea;
I have travelled a lot too,
I had been in Bimbisha
The grey regime of Asoka,
In the city of Bidarbha.
Became tired to breath
Around me danced the foam of sea
Raised her head from beneath
My weary soul got a moment’s respite 
At the behest of Banalata Sen.


Her hair is deep black
 Midnight darkness of Bidisha,
Her face, a sculpture of Sravasti
In a distant sea
A sailer who broke his rudder
 Saw the island of green grass
In the fronds of cinnamon
So I saw her, Banalata Sen of Nator.
 In the dark, raised her eyes in shy
Like the nest of birds
To whisper to me,
“Where had you been so long”


On the wing of Eagle
The golden sunray
Disappears in darkness.
As time passes by
Light shades down
Evening approaches
Like the sound of dew drop,
 At the end of the day
As the darkness descends
 Like whispering dews 
Behind the curtain of life,
When all the shades of life are put off
It is Deep Dark
Manuscript of life tell us the story
Story of abandoned life where
Fireflies twinkle in  spark,
When all the birds fly  back to nest
— All the rivers—-
All the transactions of life are closed,
Face to face me and
None but Banalata Sen of Nator.


হাজার বছর ধরে আমি পথ হাঁটিতেছি পৃথিবীর পথে,
সিংহল সমুদ্র থেকে নিশীথের অন্ধকারে মালয় সাগরে
অনেক ঘুরেছি আমি; বিম্বিসার অশোকের ধূসর জগতে
সেখানে ছিলাম আমি; আরো দূর অন্ধকারে বিদর্ভ নগরে;
আমি ক্লান্ত প্রাণ এক, চারিদিকে জীবনের সমুদ্র সফেন,
আমারে দুদণ্ড শান্তি দিয়েছিলো নাটোরের বনলতা সেন।


চুল তার কবেকার অন্ধকার বিদিশার নিশা,
মুখ তার শ্রাবস্তীর কারুকার্য; অতিদূর সমুদ্রের ‘পর
হাল ভেঙে যে নাবিক হারায়েছে দিশা
সবুজ ঘাসের দেশ যখন সে চোখে দেখে দারুচিনি-দ্বীপের ভিতর,
তেমনি দেখেছি তারে অন্ধকারে; বলেছে সে, ‘এতোদিন কোথায় ছিলেন?’
পাখির নীড়ের মত চোখ তুলে নাটোরের বনলতা সেন।


সমস্ত দিনের শেষে শিশিরের শব্দের মতন
সন্ধ্যা আসে; ডানার রৌদ্রের গন্ধ মুছে ফেলে চিল;
পৃথিবীর সব রঙ নিভে গেলে পাণ্ডুলিপি করে আয়োজন
তখন গল্পের তরে জোনাকির রঙে ঝিলমিল;
সব পাখি ঘরে আসে—সব নদী—ফুরায় এ-জীবনের সব লেনদেন;
থাকে শুধু অন্ধকার, মুখোমুখি বসিবার বনলতা সেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *