আমি গনেশ মাহাতো —– সুমিত মোদক

sahityalok.com
নাম – গনেশ মাহাতো ;
থানা – বাঘমুন্ডি ;
জেলা – পুরুলিয়া ;
আমাদের একটা দল আছে ,
ছৌ-নাচের দল ;
সে দলের আমি মহিষাসুর ;
মহিষাসুরের সঙ্গে দুর্গার যুদ্ধ ;
যুদ্ধ আর যুদ্ধ ….
যুদ্ধ যেন আর থামতে চায় না ;
সে যুদ্ধ আজও করে চলেছি ;
কখনও ছৌ-নাচে , কখনও সমাজের সঙ্গে ,
কখনও বা নিজের সঙ্গে ;
যুদ্ধ আর যুদ্ধ ….
যুদ্ধ যেন আর থামতে চায় না ;
আগে দলের ভালো ডাক আসতো ;
এ’গ্রাম থেকে ও’গ্রাম , 
ও’গ্রাম থেকে সে’গ্রামে ;
আজকাল আমাদের তেমন কেউ আর ডাকে না ;
আজকাল ছৌ-নাচ দেখে আর মানুষের মন ভরে না ;
শুধু আমাদের নয় , 
এ পুরুলিয়া জুড়ে যে দল গুলো আছে 
কারোর তেমন আর ডাক আসে না ;
একের পর এক দল গুলো শেষ হয়ে যাচ্ছে ;
শেষ হয়ে যাচ্ছে আমাদের নাচের পরম্পরা ,
আমাদের সংস্কৃতি ;
সে কারণে , নতুন ছেলেরা দেখা না আর আগ্রহ ;
এক সময় নিজেরাই মুখোশ তৈরি করতাম ,
পোশাকও …
এখন শহরের কারখানায় তৈরি হয় ;
ঝাঁ-চক-চকে মুখোশ ;
সে মুখোশ কারখানা থেকে আমাদের গ্রাম ঘুরে 
শহরে বিকোয় ,
বিদেশেও বিকোয় ;
আমাদের তৈরি জৌলুসহীন মুখোশ কেউ কেনে না আর ;
নাম – গনেশ মাহাতো ;
থানা – বাঘমুন্ডি ;
জেলা – পুরুলিয়া ;
আমি এখন জন-মজুরের কাজ করি ;
আমি এখন দিন আনি দিন খাই ;
ন’মাসে ছ’মাসে ছৌ নাচে যাই ;
আগের মতো অভাব নেই ঠিকই ,
কিন্তু , আমি যে ভিতর থেকে বধ হয়ে গেছি ;
দুর্গার ত্রিশূলে মহিষাসু যেমন বধ ;
সমগ্র পুরুলিয়া জুড়ে ছৌ-নৃত্য বধ ;
আমার ছেলেও স্কুলে যায় ;
একদিন সন্ধ্যায় ছেলেটা পড়তে পড়তে 
বইটা নিয়ে এসে বলল — 
দেখো বাবা ,দেখো ,
বইয়ে আমাদের জেলার নাম আছে ;
ছৌ-নাচের কথা আছে ;
দেখো দেখো , বইয়েতে মুখোশের ছবি ,
ছৌ-নাচের ছবি ….
আমি দেখলাম , বইয়ের পাতা জুড়ে 
কালো কালো অক্ষর ;
কে যেন কালো কালো রেখা টেনে দিয়েছে ;
আর সেই রেখা গুলো 
একটু একটু করে গিলে নিচ্ছে ছবি ,
ছৌ-নাচের ছবি , পরম্পরার ছবি ;
দু চোখ যে কখন যে ভারী হয়ে গেছে
নিজেও বুঝতে পারিনি ;
নাম – গনেশ মাহাতো ;
থানা – বাঘমুন্ডি ;
জেলা – পুরুলিয়া ;
আমাদের একটা দল আছে ,
ছৌ-নাচের দল …..

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *